দীর্ঘদিনের পাইলস থেকে ক্যানসার

  অধ্যাপক ডা. মো. সহিদুর রহমান

২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মলত্যাগের জন্য ব্যবহৃত পথ হলো পায়ুপথ। এ পথে অসুখ হলে রেহাই নেই। যার হয়েছে, সেই বোঝে। বলতেও পারে না, সইতেও পারে না। উচ্চ পদস্থ এক কর্মকর্তা (বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত) প্রায়ই বলতেন, আমার পাইলস আছে। কোনো সমস্যা করে না। মাঝে মধ্যে রক্ত পড়ে। সামান্য ওষুধ খেলেই ভালো থাকি। একদিনের ঘটনা। রোগীর নিকট এক আত্মীয়ের সঙ্গে দেখা। চোখেমুখে বিস্বাদ। অকপটে বললেনÑ উনি হাসপাতালে ভর্তি আছেন। দেখা করলাম। ভেউ ভেউ করে কাঁদতে লাগলেন। ঘটনার আকস্মিকতায় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ি। নিজেকে সামলে নিয়ে ঘটনার বিবরণ শুনি। ঘটনার বিবরণ এ রূপÑ দীর্ঘদিন ধরে ভুগছি। মলত্যাগের সময় কখনো সামান্য, কখনো অতিমাত্রায় ফোঁটা ফোঁটা রক্ত পড়ত। কিন্তু ব্যথা হতো না। এমনিতে মলত্যাগ স্বাভাবিক ছিল। কখনো ওষুধ খেতাম, কখনো খেতাম না। স্বাভাবিকভাবে চলছিল। বিগত একসপ্তাহ ধরে প্রচ- ব্যথা। ব্যথা নিরাময়ের সব ওষুধ ব্যবহার করেছি। ফল শূন্য। তখন বাসার কাছের একজন সার্জনের শরণাপন্ন হই। তিনি বায়োপ্সি করেছেন। রিপোর্ট দেখালেন। ক্যানসার। রিপোর্টে উল্লেখ আছে। শিক্ষিত মানুষ। ক্যানসার সম্পর্কে ধারণা আছে। তাই এ রোগের ভয়াবহতা ভেবে ভেঙে পড়েছেন।

এ রোগের চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে মতামত জানালাম। তিনি আশ্বস্ত হলেন। চিকিৎসা চালানোর কথা বললেন। ঘটনাটি ছিল ২০১০ সালের। দীর্ঘ ৮ বছর ধরে সম্পূর্ণরূপে সুস্থ আছেন। তিনি অতিমাত্রায় আস্থাশীল ছিলেন নিজের ধারণার ওপর। যখন রক্ত পড়া শুরু হলো, তখন তার উচিত ছিল চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া। এতে শুরুতেই রোগ ধরা পড়ত। তবু আনন্দের বিষয় হলোÑ রোগটির বিস্তার ঘটেনি। কোনো সার্জারির প্রয়োজন হয়নি। রেডিওথেরাপি ও কেমোথেরাপি দিয়ে তিনি পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। নিয়মিত ফলোআপে আছেন। স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন। আধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থায় ক্যানসার এখন নিরাময়যোগ্য রোগ, যদি শুরুতেই ধরে পড়ে, তবেই।

মলত্যাগের সময় রক্ত পড়ে। পাইলস একটি কারণ। আরও অনেক কারণ আছে। যেমনÑ শিশুদের ক্ষেত্রে রেক্টাল পলিপ। বড়দের ক্ষেত্রে অ্যানাল ফিশার, ক্যানসার, ক্রনস ডিজিজ, আরসারেটিভ কোলাএটিস, টিউবার কুলোসিস। গর্ভবতীরও পাইলস দেখা দেয়, যা প্রসবের পর আর থাকে না।

লেখক : অধ্যাপক, হেপাটোবিলিয়ারি প্যানক্রিয়েটিক অ্যান্ড লিভার ট্রান্সপ্লান্ট সার্র্জারি বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়

চেম্বার : লিভার গ্যাস্ট্রিক স্পেশালাইজড হাসপাতাল। বাড়ি-৭৫, রোড-৫/এ

ধানম-ি, সাতমসজিদ রোড, ঢাকা

০১৮৭৯১৪৩০৫৭, ৯১৩৩৬১৯

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে